Jokes

বাংলায় কৌতুক

##হোটলে খেতে গিয়ে এক লোক: ধূর, এই খাবারটা হ্যাস্যকর লাগছে
ওয়েইটার: বাবুর্চি নিশ্চয়ই রান্নার সময় খুব করে হেসেছিল।

###জজ: আগেরবার না বলেছিলাম তোমকে যেন ২য় বার এখানে না দেখি।
আসামী: আমিও একথাটাই পুলিশকে বললাম। বেয়াড়া পুলিশ শুনলোনা।

##১ম ছাত্র: আমাদের স্যার কী পড়ায় আমি কিছুই বুঝিনা।
২য় ছাত্র: তবু ভাল। আমাদের স্যার কি পড়ায় তা আমরা বুঝবো কি তিনিই বোঝেননা।

##১ম চোর: এত টাকা চুরি করলাম যে এখন গুণতেই বিরক্তি লাগছে।
২য় চোর: গোণার দরকার নেই। আগামীকাল খবর দেখলেই হবে।

##ভিক্ষুক: আমি আসলে লেখক। আমার একটা বই আছে- “ধনী হবার ১০০ উপায়”।
বাড়িওয়ালা: তাহলে ভিক্ষা করছ কেন?
ভিক্ষুক: আমার বইয়ে এ উপায়ের নামও বলেছি।

##গায়ক: ধন্যবাদ, তুমি দূর থেকে আমার গান শুনেই মুগ্ধ হয়ে আমার কাছে চলে এলে।
শ্রোতা: আমি ভাবলাম আপনি কোনভাবে আহত হয়ে কাতরাচ্ছেন

##১ম বন্ধু: এই শোনার যন্ত্রটি কিনে আমি কয়েক মাইল দূরের শব্দও স্পষ্ট শুনতে পারি।
২য় বন্ধু: চমৎকার, এটা কত দিয়ে কিনলে?
১ম বন্ধু: ও, এখন বাজে সাড়ে এগারোটা।

##১ম ব্যক্তি: আমার ছেলে আমার কোন কথাই শোনেনা।
২য় ব্যক্তি: কেন, সেকি খুব বেশি উচ্ছৃংখ্যল?
১ম ব্যক্তি: আরে না! সে বধির।

##শিক্ষক: একটা উভচর প্রাণীর নাম বল।
ছাত্র: ব্যাঙ
শিক্ষক: আরেকটা বলো
ছাত্র: আরেকটা ব্যাঙ

##এক লোক আমেরিকার নিউইয়র্কের সেন্ট্রাল পার্কে হাঁটছে। এমন সময় একটা কুকুর একটি ছোট মেয়েকে ধাওয়া করতে করতে তার সামনে এসে পড়ল। বিশাল কুকরটি মেয়েটিকে মেরেই ফেলতে যাবে এমন সময় লোকটি কুকরকে মেরে পুঁচকে মেয়েটিকে বাঁচাতে সক্ষম হল। আর তখনই একজন পুলিশও হাজির হল ঘটনাস্থলে।
পুলিশ লোকটাকে বলল, “আগামীকাল পত্রিকায় খবর হবে একজন অসীম সাহসী নিউইয়কর্ববাসী এক পুঁচকে মেয়ের জীবন বাঁচাল”
লোকটা বলল.,”আমি তো নিউইয়র্কবাসী নই”
পুলিশ বলল তাহলে খবর হবে ‘এক সাহসী আমেরিকান এক পুঁচকে মেয়ের জীবন বাঁচাল’
লোকটা বলল, “আমি তো আমেরিকানও নই” পুলিশ বলল, “তাহলে তুমি কী?”
লোকটা বলল, “আমি সৌদি মুসলিম”
পরদিন পত্রিকায় খবর হল, “মুসলিম চরমপন্থীর হাতে নিরপরাধ আমেরিকান কুকুরের মুত্যু”!!

##ভিক্ষুক গৃহকর্তীকে: আপনাকে পরীর মত সুন্দর লাগছে। কিছু ভিক্ষা দিননা। আমি অন্ধ
গৃহকর্তী স্বামীকে: দেখলে, লোকটা কেমন মিথ্যুক, সে নাকি অন্ধ।
স্বামী: সে সত্যিই অন্ধ।
স্ত্রী: কি করে বুঝলে?
স্বামী: সে তোমাকে পরীর মত সুন্দর বলল যে।

##নতুন ছাত্র ক্লাসে এলে শিক্ষক: তোমরা বাবা কি করে?
ছাত্র: মা যেটা করতে বলে।

##১ম বন্ধু: অস্ত্রোপচার করার সময় সার্জনরা মাস্ক পরে কেন?
২য় বন্ধু: যাতে রোগী মারা গেলে কার হাতে মারা পড়েছে চেনা না যায়।

##বাবা: এই মানচিত্রটা দেখে বলতো আফ্রিকা কোথায়?
ছেলে: এই… তো
বাবা: আচ্ছা, জানো কে আফ্রিকা আবিষ্কার করেছে?
ছেলে: আমি

##শিক্ষক: তুমি বানানে কাঁচা বিধায় তোমাকে মাত্র দশ লাইন লিখতে দিয়েছিলাম, কম লিখেছ কেন?
ছাত্র: আমি গণিতেও কাঁচা।

##প্রভাষক: আজকের লেকচার কেমন হয়েছে?
ছাত্ররা সমস্বরে: স্যার, দারুণ সমাপ্তি হয়েছে। লেকচার শেষ হতে না হতেই সবার আনন্দ আর ধরেনা!

##শিক্ষক: ৫টি গৃহপালিত পশুর নাম বল।
ছাত্র: গরু, ছাগল, কুকুর ২ টি বিড়াল।

Share your comment

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: